,
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:১৬ অপরাহ্ন

ফুলবাড়িয়া হাসপাতালে এপেন্ডিসাইটিস ,সিজার, হানিয়াসহ সাধারণ ওটির ব্যাপক সাড়া

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ৩ অক্টোবর, ২০২৩
  • ১৭১ Time View

সাইফুল ইসলাম তরফদার, ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতলে এপেন্ডিসাইটিস,সিজার, হানিয়া ও সাধারণ অপারেশন ওটি চালু হওয়ার পর ব্যাপক সাড়া পড়েছে। উৎসাহ উদ্দীপনা মধ্য দিয়ে মঙ্গলবার (৩ অক্টোবর) সকালে সিজার ও এপেন্ডিসাইটিস একটি করে অপারেশন (ওটি) সম্পন্ন হয়।

জানা যায়, বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা স্বাস্থ্য সেবা মানুষের দোরগোড়ায় পৌছে দিয়েছে।তার প্রমাণ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ফুলবাড়িয়া হাসপাতালে জেনারেল অপারেশন চলছে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডাঃ বিধান চন্দ্র দেবনাথ যোগদান করা পর থেকে হাসপাতালের অপারেশনের জন্য ওটি চালু করেন। জুনিয়র কনসার্টেন্ট (গাইনি)ডাঃ খাদিজা সিদ্দিক সুইটি, জুনিয়র কনসার্টেন্ট সার্জারি ডাঃ সাইফুল মালেক,জুনিয়র কনসালটেন্ট (এনেস্থিসিয়া)ডাঃ মমিনুল ইসলাম তাদের সার্বিক সহযোগিতায় উপজেলা গরীব হতদরিদ্র মানুষ এসব সেবা পাচ্ছে। এ অপারেশন ব্যবস্থা চালু হওয়ায় আনন্দিত উপজেলা বাসী।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সূত্রে আরো জানা যায় যে, গত১৭ অক্টোবর ২০২২ ইং তারিখ হইতে অদ্যবধি পর্যন্ত আল্লাহর অশেষ রহমতে ওটির কার্যক্রম চলছে।সিজার ২১ টি,হার্নিয়া ১৩ টি,এপেন্ডিসাইটিস একটিসহ মাইনর অপারেশন ১৫৭টি সম্পন্ন হয়েছে।

এপেন্ডিসেকটমি অপারেশন করেন সার্জারী জুনিয়র কনসালটেন্ট ডা: মো: সাইফুল মালেক,সিজার অপারেশন জুনিয়র কনসালটেন্ট (গাইনী)ডাঃ খাদিজা সিদ্দিক সুইটি, এনেসথেসিয়া ডাঃ মমিনুল ইসলাম,
সিজার এসিস্ট্যান্ট ডাঃ আনিয়া সুলআনা বিথী,নার্স ফাহিমা উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলার ভালুকজান গ্রামের এপেন্ডিসেকটমি রোগী কাউসার মাহমুদ এর পিতা রুহুল আমিন বলেন,ফুলবাড়িয়া হাসপাতালের জরুরী বিভাগ পেটের ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে আসি।কর্তব্যরত চিকিৎসক এপেন্ডিসেকটমি রোগ নির্ণয় করেন। কর্তৃপক্ষ এপেন্ডিসেকটমি অপারেশন করেন।আমার ছেলেকে ফুলবাড়িয়া হাসপাতালে বিনামূল্যে অপারেশন সম্পন্ন হওয়ায় কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ।

উপজেলার বাক্তা গ্রামের এক প্রসূতির সিজারিয়ান অপারেশন রিংকির স্বামী চয়ন সরকার বলেন, আমরা গরীব মানুষ ময়মনসিংহ শহরে গেলে অনেক টাকা লাগতো। বিনামূল্যে সেবা পাচ্ছি ফুলবাড়িয়া হাসপাতালে কর্তৃপক্ষ ও বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ।

স্থানীয় শফিকুল ইসলাম জানান, কোনো প্রসূতি মায়ের অবস্থার অবনতি হলে ময়মনসিংহে যাওয়া ছাড়া কোনো উপায় ছিল না। সরকারিভাবে সিজারিয়ান অপারেশন এখানে না থাকায় ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে উপজেলাবাসীর।বর্তমানে ফুলবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে বিভিন্ন অপারেশনের সেবা পাচ্ছি।

সমাজসেবক রেজাউল রানা বলেন,বিকল্প হিসেবে বিভিন্ন বেসরকারি ক্লিনিক অথবা ময়মনসিংহে অপারেশন করাতে হতো। এতে খরচও হতো অতিরিক্ত।ফুলবাড়িয়া হাসপাতালে বর্তমানে হাতের নাগালে এ ব্যবস্থা চালু করায় আমরা হাসপাতাল ডাক্তারদের প্রতি অনেক কৃতজ্ঞ।

অপারেশন কার্যক্রমে সময় উৎসাহ এবং সার্বিক সহযোগিতা করেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তার ডাঃবিধান চন্দ্র দেবনাথ, জুনিয়র কনসালটেন্ট মেডিসিন ডাঃ খাদিমুল ইসলাম নাঈম,আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ কৌশিক দেব, ডাঃ শোয়েব মিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডা.বিধান চন্দ্র দেবনাথ বলেন, প্রায় এক বছর হয়েগেল ফুলবাড়িয়া সরকারি হাসপাতালে সিজার এবং অন্যান্য জেনারেল ওটি চালু বয়স।আমারা অনেক আনন্দিত এপেন্ডিসেকটমি অপারেশন সম্পূর্ন হয়েছে। হাসপাতালে আমরা যেকোনো স্বাস্থ্য সেবা সাধারণ মানুষের হাতের নাগালে দিয়েছি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরও খবর পড়ুন:

Jonogoner Khobor - জনগণের খবর পোর্টালের গুরুত্বপূর্ণ লিংকসমূহ:

 আমাদের পরিবার

About Us

Contact Us

Disclaimer

Privacy Policy

Terms and Conditions

Design & Developed by: Sheikh IT
sheikhit

জনগণের খবর পোর্টালের কোনো প্রকার নিউজ, ছবি কর্তৃপক্ষের অনুমতি ব্যতীত অন্য কোথাও ব্যবহার করা যাবে না। ধন্যবাদ।