,
রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:২২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
১৯ দিনে প্রবাসী আয় এলো ১৪ হাজার কো‌টি টাকা কমানোর একদিন পরই বাড়লো স্বর্ণের দাম নিরাপদ সড়কের দাবীতে চোখে কালো কাপড় বেঁধে রাস্তায় নেমেছেন পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী ঘোড়াঘাটের পৌরমেয়র ও পৌর বিএনপির সভাপতিসহ চার নেতাকর্মী কারাগারে মুরগির ফার্ম নিয়ে ফরিদপুরে সংঘর্ষে আহত ৮, গ্রেপ্তার ১১ মেসির জোড়া গোলে ৩-১ ব্যবধানে জয় তুলে নিয়েছে ইন্টার মায়ামি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ব্যাটারি কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী বোরো মৌসুমের ধান-চালের দাম নির্ধারণ করলো সরকার প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ফল প্রকাশ গোবিন্দগঞ্জে ৪০০ বোতল ফেন্সিডিল সহ দুই শীর্ষ মাদক ব্যাবসায়ী গ্রেফতার

ব্রিটিশ প্রিন্সের দাতব্য সংস্থায় বিন লাদেনের পরিবারের অনুদান

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেটের সময় : রবিবার, ৩১ জুলাই, ২০২২
  • ৯৪ Time View

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: টুইন টাওয়ারে ৯/১১’র হামলার মূলহোতা ওসামা বিন লাদেনের পরিবারের কাছ থেকে নিজের দাতব্য সংস্থার জন্য ১ দশমিক ২১ মিলিয়ন ডলারের অনুদান গ্রহণ করেছেন ব্রিটিশ সিংহাসনের উত্তরাধিকারী প্রিন্স চার্লস। ব্রিটিশ দৈনিক সানডে টাইমসের এক প্রতিবেদনে নতুন এই তথ্য সামনে আনা হয়েছে।

যদিও সৌদি আরবে বসবাসরত ওসামা বিন লাদেনের পরিবারের কোনও সদস্যের বিরুদ্ধে অপরাধে জড়িত থাকার কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি। তারপরও অনুদান নেওয়ার এই ঘটনায় ৭৩ বছর বয়সী ব্রিটিশ প্রিন্সের দাতব্য সংস্থার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়েছে।

সূত্রের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ ওই দৈনিকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কয়েকজন উপদেষ্টা চার্লসকে ওসামা বিন লাদেনের পরিবারের সদস্য বকর বিন লাদেন এবং তার ভাই শফিকের কাছ থেকে অনুদান না নেওয়ার জন্য অনুরোধ জানিয়েছিলেন।

ব্রিটেনের আরেক দৈনিক দ্য গার্ডিয়ান বলছে, ২০১৩ সালে লন্ডনের ক্লারেন্স হাউসে বকরের সাথে সাক্ষাৎ করেছিলেন প্রিন্স চার্লস। সেই সময় তিনি বকরের কাছ থেকে নিজের দাতব্য সংস্থা প্রিন্স অব ওয়েলস চ্যারিটেবল ফান্ডের (পিডব্লিউসিএফ) জন্য অনুদান নিতে রাজি হন। তবে প্রিন্স চার্লসের উপদেষ্টা এবং তার অফিসের কর্মকর্তারা এই অনুদানে আপত্তি জানিয়েছিলেন।

পিডব্লিউসিএফের চেয়ারম্যান ইয়ান চেশায়ার বলেছেন, সেই সময় পিডব্লিউসিএফের পাঁচজন ট্রাস্টি বকরের কাছ থেকে অনুদান নিতে সায় দেন।

এদিকে, সৌদি আরবের অপর একজন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে চার্লসের দাতব্য সংস্থার অনুদান নেওয়ার ঘটনায় গত ফেব্রুয়ারিতে তদন্ত শুরু করেছে ব্রিটিশ পুলিশ। এই অভিযোগের অভ্যন্তরীণ এক তদন্তের পর গত বছর প্রিন্স চার্লসের দাতব্য সংস্থার প্রধান পদত্যাগ করেন।

সংস্থাটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মাইকেল ফসেট সৌদি আরবের ওই ব্যবসায়ীর সাথে নিজের গোপন সম্পর্কের তথ্য গণমাধ্যমে আসার পর প্রাথমিকভাবে তিনি পদত্যাগে রাজি হন।

সৌদি আরবের ব্যবসায়িক টাইকুন মাহফুজ মারেই মুবারক বিন মাহফুজ বিশেষ দৃষ্টি পাওয়ার আশায় চার্লসের সংস্থায় প্রচুর অর্থ দান করেন।

কয়েক দশক ধরে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের উত্তরাধিকারী প্রিন্স অফ ওয়েলসের ঘনিষ্ঠ ছিলেন পিডব্লিউসিএফের সাবেক কর্মী মাইকেল ফসেট। সৌদি ব্যবসায়ী মাহফুজকে রাজকীয় সম্মান, এমনকি যুক্তরাজ্যের নাগরিকত্ব দেওয়ার জন্য জোর প্রচেষ্টা চালানোর অভিযোগ রয়েছে ফসেটের বিরুদ্ধে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরও খবর পড়ুন:

Jonogoner Khobor - জনগণের খবর পোর্টালের গুরুত্বপূর্ণ লিংকসমূহ:

 আমাদের পরিবার

About Us

Contact Us

Disclaimer

Privacy Policy

Terms and Conditions

Design & Developed by: Sheikh IT
sheikhit

জনগণের খবর পোর্টালের কোনো প্রকার নিউজ, ছবি কর্তৃপক্ষের অনুমতি ব্যতীত অন্য কোথাও ব্যবহার করা যাবে না। ধন্যবাদ।